শহীদ মোহাম্মদ লিয়াকত আলী

You are currently viewing শহীদ মোহাম্মদ লিয়াকত আলী

শাহাদাত দিবস : ১০ এপ্রিল

সুন্নী আন্দোলনের দ্বিতীয় শহীদ। ১৯৭০ সালের মে মাসে জন্ম নেওয়া চট্টগ্রামের চান্দঁগাও থানাধীন মৌলভীপুকুর পাড়ের বাসিন্দা। চার ভাই এক বোনের পরিবারের ৪র্থ সন্তান। সাদা-সিধে মনের মানুুষ ছিলেন লিয়াকত ভাই। চাঁন্দগাও হামেদিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শিক্ষা হাতেখড়ি এবং পরবর্তী কুরাইশ বুড়িশ্বর শেখ মুহাম্মদ ডিগ্রি কলেজে ভর্তি হলেন। এরই মাঝে সম্পৃক্ত হন আদর্শিক এ কাফেলার সাথে মন-মানসিকভাবে গড়ে উঠা শুরু করলেন সুন্নীয়তের কাননে।

১৯৮৬ সাল ১০ এপ্রিল দিনটি ছিল তার শেষ দিন। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ কমার্স কলেজের ছাত্রসেনার নবীন বরণ অনুষ্ঠান ছিল। তিনি শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতী ওবাইদুল হক নঈমী (মা.জি.আ.)’র প্রচন্ড ভক্ত ছিলেন সেই সুবাধে যেখানে উনার প্রোগ্রাম থাকতো সেখানেই ছুটে যেতেন বীরদর্পে। সেই দিন আল্লামা ওবাইদুল হক নঈমী অতিথি ছিলেন। সেই দিনও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। নবী প্রেমে উদ্ধুদ্ধ এ সৈনিক যদিও সেই দিন টার্গেড ছিলেন না তদুপরী কপালে শহীদের অনন্ত পুরুস্কার ছিল তাই হয়েছে। অনেক আগে থেকে টার্গেড ছিল এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার। ভাগ্যক্রমে পরণের শার্ট মিল থাকায় লিয়াকত ভাই ভুল টার্গেডের স্বীকার হয়ে তাদের সেই নির্মমতার শিকারে পরিণত হলেন। আগে থেকেই উৎপেতে থাকা শিবিরের ক্যাডারেরা লিয়াকতের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে । ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জর্জরিত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। রক্ত ভেসে যায় এলাকা। পড়ে আছে নিতর দেহ। মারাত্মক আঘাত পাওয়া লিয়াকতকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করেন ডাক্তার। শাহাদাতের সূধা পান করে হয়ে গেলেন পরকালের বাসিন্দা। ইমামে আহলে সুন্নাত আল্লামা নুরুল ইসলাম হাশেমীর ইমামতিতে তাঁর জানাযা সম্পন্ন হয়।

#chattrasenacentral #IT_Cell_Sena

Leave a Reply